বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

| ৬ আষাঢ় ১৪৩১

Campus Bangla || ক্যাম্পাস বাংলা

কোটা পুনর্বহালের প্রতিবাদে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৬:৪৫, ৯ জুন ২০২৪

কোটা পুনর্বহালের প্রতিবাদে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ

প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা পুনর্বহালে আদালতের দেওয়া রায় বাতিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীরা। 

রবিবার (৯ জুন) বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে এক মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচি থেকে এ প্রতিবাদ জানান তারা। এসময় তারা বরিশাল-পটুয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করেন। পরে বিক্ষোভ মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক হয়ে ভোলা রোড প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাউন্ড ফ্লোরে এসে শেষ হয়।

এখানে মূলত কোটাপ্রথার সংস্কারের দাবিতে এসেছি। আমি একজন নারী, আমি চাই যে নারী কোটা না থাকুক। নারী কোটার মাধ্যমে নারীদের সমাজে আরো বেশি হেয় করা হয়। ৩০% মুক্তিযোদ্ধা কোটাসহ অন্যান্য অপ্রয়োজনীয় কোটা ব্যবস্থাগুলোর বাতিল দাবি জানাচ্ছি

- ভূমিকা সরকার; সভাপতি, পদাতিক।

এ সময় শিক্ষার্থীরা ‘সারা বাংলায় খবর দে, কোটা প্রথার কবর দে', 'আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবার', 'জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্রসমাজ জেগেছে', 'লেগেছে রে লেগেছে, রক্তে আগুন লেগেছে', 'কোটা প্রথা, বাতিল চাই বাতিল চাই', ‘আপস না সংগ্রাম, সংগ্রাম সংগ্রাম’, 'মুক্তিযুদ্ধের বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই'- ইত্যাদি শ্লোগান দিতে থাকেন।

অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী ও সাংস্কৃতিক সংগঠন পদাতিকের সভাপতি ভূমিকা সরকার বলেন, আমরা এখানে মূলত কোটাপ্রথার সংস্কারের দাবিতে এসেছি। আমি একজন নারী, আমি চাই যে নারী কোটা না থাকুক। নারী কোটার মাধ্যমে নারীদের সমাজে আরো বেশি হেয় করা হয়। ৩০% মুক্তিযোদ্ধা কোটাসহ অন্যান্য অপ্রয়োজনীয় কোটা ব্যবস্থাগুলোর বাতিল দাবি জানাচ্ছি। 

বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারী আরেক শিক্ষার্থী বলেন,  ৫৬ শতাংশ কোটা কোনো দেশের স্বাভাবিক শিক্ষাব্যবস্থা হতে পারে না। মেধাবীরা পরিশ্রম করে চাকরি পাবে, কোটায় নয়। কোটা প্রথা কখনোই জাতির কল্যাণ বয়ে আনবে না। এটা দেশের মেধাবীদের সঙ্গে একধরনের উপহাস করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (৫ জুন) সরকারি প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাসহ অন্য কোটা বাতিল করে জারি করা পরিপত্র অবৈধ ঘোষণা করেছেন উচ্চ আদালত। ফলে সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল থাকবে।

এজেড